July 22, 2024, 7:25 pm

নোটিশ:
সংবাদদাতা আবশ্যক
সংবাদ শিরোনাম:
ভূরুঙ্গামারীতে পরকীয়ার সংবাদ সংগ্রহ করায় সাংবাদিক কে মামলার হুমকি। ঘোড়াঘাটে পোনা মাছ অবমুক্তকরণ। ঘোড়াঘাটে ওয়ার্ল্ড ভিশনের সমাপনী ও ভবিষ্যৎ কার্যক্রম বিষয়ক আলোচনা সভা। বগুড়ার শাজাহানপুরে গত ১ মাসেও অজ্ঞাত লা*শের মেলেনি পরিচয়। বগুড়ার শাজাহানপুরে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা ফুটবল টুর্নামেণ্টের পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান। বগুড়ার শাজাহানপুরে জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন শতভাগ নিশ্চিত করণে সভা অনুষ্ঠিত। শাজাহানপুরে মুক্তিযোদ্ধা স্কুল এন্ড কলেজে বৃক্ষরোপণ করলেন এমপি মজনু। বগুড়ায় ছাত্রী নিবাস থেকে নার্সিং শিক্ষার্থীর ঝুল-ন্ত মর-দেহ উদ্ধার। ঘোড়াঘাটে পল্লী বিকাশ সহায়ক সংস্থার ২য় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত। জয়পুরহাটে ট্রাক্টরের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘ-র্ষে মোটরসাইকেল আরোহী নিহ-ত।

বগুড়ায় রাবেয়া পার্কের গুন্ডাবাহিনীর তান্ডব।

দৈনিক আলো প্রতিদিন ডেস্ক: বগুড়ার কাহালুর উপজেলার বীরকেদার গ্রামের রাবেয়া পার্কে এন্ড চাইনিজ রেস্টুরেন্টের গুন্ডাবাহিনীর হামলায় আজ একজন সাংবাদিক আহতের ঘটনা ঘটেছে। ওই সাংবাদিক তার ৯ বছর বয়সী ছোট মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে শুক্রবার সকালে ওই পার্কের রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিলেন। পার্কের কয়েক গজ আগেই আট দশ জনের একটি গুন্ডাবাহিনী রাস্তার উপর বাঁশ ফেলে অবরোধ করে থাকে। ওই সাংবাদিক রাস্তা বন্ধের কারণ জানতে চাইলে তারা বলে এখানে বাইক গ্যারেজ করতে হবে। এখানে বাইক গ্যারেজ করে কোথায় যাবেন হেটে যান। এমন কথায় তিনি তাদের বলে আমিতো পার্কে ঢুকবো না। রাস্তা দিয়ে অন্য জায়গায় যাবো। বাইক গ্যারেজ করতে হবে কেন? এই কথা বলার সাথে সাথেই তার উপর আক্রমণ চালায় ওই গুন্ডার দল। তাকে এলোপাথারী মেরে মাটিতে ফেলানো হয়। তার সাথে থাকা ছোট মেয়েটিও ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়। ফেলে দেয় তার সফর সঙ্গী এপেক্স ক্লাব অব বগুড়ার সভাপতি রেজাউল করিমকেও। ওই ঘটনায় কাহালু থানায় অভিযোগ দায়ের করা হলেও পুলিশ এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত (সন্ধ্যা ৭টা) কাউকে আটক করতে পারেনি।
খোঁজ নিয়ে জানাযায়, রাবেয়া পার্কে এন্ড চাইনিজ রেস্টুরেন্টের মালিক আনিছুর রহমান স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য এবং দুপচাঁচিয়া মিনি ট্রাক চালক সমবয় সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক। তিনি গ্রামের মধ্যে একটি পার্ক এবং চাইনিজ রেস্টুরেন্ট ব্যবসা পরিচালনা করে আসছেন।

ওই পার্কের আড়ালে আনিছুর রহমান উঠতি বয়সের ছেলে মেয়েদের অবাধ মেলা মেলার একটি নিরাপদ অভায়আশ্রম নিশ্চিৎ করেছেন। বিনিময়ে অর্থ কড়িতে পকেট ভাড়াচ্ছেন। ওই এলাকায় কোন সাংবাদিক বা ক্যামেরা নিয়ে কেউ প্রবেশ করলে তার পালিত গুন্ডাবাহিনী রুখে দেয়।

বাইরে সার্বক্ষণিক তার গুন্ডাবাহিনী অবস্থান করে। গুন্ডাদের নেতৃত্ব দেয় আনিছুর রহমানের আপন ভাই আমিনুল ইসলাম। তারা ভিতরে প্রবেশ করা ছেলে মেয়েদের নিরাপত্তার পাশাপাশি বাইরে একটি গ্যারেজ পরিচালনা করে।

ওই রাস্তায় যেকেউ বাইক নিয়ে গেলে রাস্তায় বাঁশ দিয়ে ব্যারিকেট দিয়ে বাধ্যকরে বাইক গ্যারেজে রাখতে। আমিনুল নিজে ওই সাংবাদিককে মেরে জখম করে দেয়। মোবাইল ফোন ভেঙ্গে দেয় এবং পকেট থেকে নগদ ১৭ হাজার ৩০০ টাকা ছিনিয়ে নেয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © DailyAloPratidin.com